1. rajubdnews@gmail.com : Somoyer Nur : Somoyer Nur
  2. abdunnur9051@gmail.com : SomoyerNur : Abdun Nur
রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ০৮:৪০ অপরাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম
মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা ৯ ফেব্রুয়ারি | সময়ের নুর ডট কম নোয়াখালীতে ৪ লাখ টাকাসহ সাত জুয়াড়ি গ্রেফতার | সময়ের নুর ডট কম ঋণ-আমানতের সুদহারে সীমা তুলে নিল কেন্দ্রীয় ব্যাংক | সময়ের নুর ডট কম লক্ষ্মীপুরের বশিকপুরে স্ত্রী-সন্তানদের আটকে রেখে ঘরে আগুন, প্রাণ গেলো দুজনের | সময়ের নুর ডট কম লক্ষ্মীপুরে বিচারকের নির্দেশে কাঠগড়ায় আসামিকে থাপ্পড়! | সময়ের নুর ডট কম নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ১০ শয্যার আইসিইউ ইউনিট চালু | সময়ের নুর ডট কম লক্ষ্মীপুরে চন্দ্রগঞ্জে কাভার্ডভ্যান-সিএনজি সংঘর্ষে নিহত ১ | সময়ের নুর ডট কম পূর্ব বিরোধের জেরে ‘লোক ভাড়া করে’ প্রতিবেশীর ঘরে ডাকাতি পুরোনো শীতের কাপড় ও লেপ-কম্বল ব্যবহারের আগে যা করবেন | সময়ের নুর ডট কম সাংবাদিকদের সাথে লক্ষ্মীপুর সদর-৩ আসনে আ.লীগের এমপি প্রার্থীর মতবিনিময় | সময়ের নুর ডট কম

৩০ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত মসজিদে আজান হয় না ৫ বছর | সম‌য়ের নুর ডট কম

প্রতিনিধি'র নাম
  • আপডেটের সময় : রবিবার, ২৩ মে, ২০২১
  • ৪৭৭ বার পঠিত হয়েছে

বি‌শেষ প্রতি‌বেদক :

সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার ১ নম্বর বাংলাবাজার ইউনিয়নের হকনগর শহীদ স্মৃতিসৌধে সাত বছর আগে সরকারি অর্থায়নে নির্মাণ করা হয় একটি মসজিদ।

মসজিদটি নির্মাণে ৩০ লাখ টাকা ব্যয় হয়। অথচ মসজিদটিতে পাঁচ বছর আজান হয় না। কেননা গত পাঁচ বছর ধরে মসজিদটি তালাবদ্ধ।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলায় মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত ৫নং সাব সেক্টর হকনগর শহীদ স্মৃতিসৌধে প্রায় ৩০ লাখ টাকা ব্যয়ে সরকারি টাকায় সাত বছর আগে মসজিদটি নির্মাণ করা হয়। তখন মসজিদের পাশে একটি রেস্ট হাউজ ছিল। সেই রেস্ট হাউজের এক কেয়ারটেকার মসজিদ নির্মাণের পর দুই বছর নিজ দায়িত্বে নামাজ পড়িয়েছেন। সেই কেয়ারটেকার এখন আর এখানে নেই। এখন পর্যন্ত ওই মসজিদে নিয়োগ দেয়া হয়নি ইমাম ও মুয়াজ্জিন।

ঘুরতে আসা দশনার্থীরা বলছেন, এটা কর্তৃপক্ষের অবহেলা। মসজিদে ইমাম ও মুয়াজ্জিন না থাকায় আজান ও নামাজ হচ্ছে না। এটা মুসল্লিদের জন্য কষ্টের। এ বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ জানান তারা।

স্থানীয় বাসিন্দা জামাল আহমেদ বলেন, এখানে অনেক মানুষ ইতিহাস জানতে ও দেখতে আসেন। তবে মসজিদে গিয়ে নামাজ পড়তে পারেন না। এটা তালাবদ্ধ থাকে সবসময়।

বিজ্ঞাপন

সুনামগঞ্জ থেকে ঘুরতে আসা দশনার্থী আল হাবিব বলেন, ‘সময়ের অভাবে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত ৫নং সাব সেক্টর হকনগর শহীদ স্মৃতিসৌধে আসা হয়নি। তাই সুযোগ বের করে এখানে ঘুরতে এসেছি। এখানে সব ঠিক আছে। তবে পাঁচ বছর মসজিদে আজান হয় না জেনে অবাক হয়েছি। এটা আসলেই দুঃখজনক। একটা মসজিদ পাঁচ বছর ধরে তালাবদ্ধ!’

আরমান আহমেদ নামের আরেক দর্শনার্থী জাগো নিউজকে বলেন, ‘দোয়ারাবাজারে মুক্তিযুদ্ধের অনেক স্মৃতি রয়েছে। সেগুলো দেখতেই এখানে আসা। কিন্তু এখানে এসে মনটা খারাপ হয়ে গেল। দূর থেকে মসজিদ আছে দেখে এখানে নামাজ পড়তে আসলে স্থানীয়রা জানান, এটি পাঁচ বছর ধরে তালাবদ্ধ। ভাবতেও অবাক লাগে একটি মসজিদ কীভাবে পাঁচ বছর ধরে তালাবদ্ধ থাকে? আমি সরকারের কাছে জোর দাবি জানাই, দ্রুত মসজিদটি উম্মুক্ত করে দেয়া হোক।’

বিজ্ঞাপন

স্থানীয় বাসিন্দা সোনা মিয়া বলেন, ‘মসজিদ নির্মাণের পর মসজিদের পাশে একটা রেস্ট হাউজ আছে। সেই রেস্ট হাউজের একজন কর্মচারী প্রথম অবস্থায় এই মসজিদে নামাজ পড়েছে। কিন্তু সেও এখন আর এখানে থাকে না। তাই মসজিদটি পাঁচ বছর ধরে তালাবদ্ধ।’

স্থানীয় আব্দুল কাইয়ুম জাগো নিউজকে বলেন, আমরা কোনো অজুহাত শুনতে চাই না। আমাদের দাবি মসজিদ তালাবদ্ধ করার জিনিস নয়। মসজিদ তালাবদ্ধ থাকায় নামাজ পড়তে মুসল্লিদের বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে। মসজিদ বন্ধ থাকতে থাকতে মসজিদের ভেতরে এখন বৃষ্টির পানি পড়ে। আমরা জোর দাবি জানাই মসজিদটি মেরামত করে দ্রুত উম্মুক্ত করা হোক।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved SOMOYERNUR
Theme Customized BY LatestNews